নির্মম নিয়তিতেও থেমে নেই রুবেলের জীবন

Share This
Tags

robi1

লালমনিরহাট প্রতিবেদক: ১৬বৎসর বয়সের রুবেল, সে জীবন সংগ্রামের এক লড়াকু সৈনিক। প্রবল ইছাশক্তিকে যার দমাতে পারেনি জীবনের নানান
প্রতিকুলতা। লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার টংভাঙ্গা (পূর্ব পাড়া) গ্রামের এক ছোট্ট কুঠিরে তাঁর বাস।
দিনমজুর বাবা আবু বক্করের ৫ মেয়ে ২ ছেলের মধ্যে রুবেলই সবার বড়। মা রহিমা বেগম অন্যের বাড়িতে কাজকর্ম করে কোনরকমে চলে তাঁদের সংসার। ৭ ছেলে মেয়ের মধ্যে ৩ জনেই শারীরিক প্রতিবন্ধি। চলতে ফিরতে জীবনের বাঁকে কিছু মর্মান্তিক দৃশ্য কখনও ভাবিয়ে তুলে, কখনও বিস্মিত করে শত সমস্যার মধ্যেও অর্জিত তাঁদের কৃতিত্ব।
শারীরিক প্রতিবন্ধি রুবেল পড়াশুনায় অত্যন্ত মনোযোগী এবং মেধাবী ছাত্র, গত বছরে কৃতিত্বের সাথে সমাপনি পরীক্ষায় (পি.এস.সি) পাশ করে, রুবেল বর্তমানে হাতীবান্ধা এস এস মডেল হাই স্কুলের ৬ষ্ট শ্রেণীর ছাত্র। অভাবের সংসার ও শারীরিক শত প্রতিকুলতার মধ্যেও অদম্য ইছাশক্তি যে কাউকে দমিয়ে রাখতে পারেনা, প্রতিবন্ধি রুবেলই তাঁর প্রমাণ। সে উচ্চশিক্ষা অর্জন করে সুশিক্ষিত হতে চায়, রাখতে চায় সুনাগরিক হিসাবে রাষ্ট্রের সম্মান।
তাঁর শারীরিক প্রতিবন্ধি আরও দুই বোন রুনি ১০ সে শিশু শ্রেণীতে পড়ে এবং মিনির বয়স ৮বৎসর।
সরেজমিনে রুবেলের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, ঘরের সাথে সামান্য কিছু মালামাল নিয়ে দিয়েছে ছোট্ট একটি মুদি দোকান এবং পাশাপাশি তাঁর বাবা মাকে উৎসাহিত করছে হাঁস-মুরগী পালনে।
সরকারী কিংবা কোন দাতা সংস্থার আর্থিক সহযোগীতা পেলে রুবেলের যথেষ্ট উন্নতি হওয়ার সম্ভাবনা আছে বলে এলাকা বাসি জানান।

আপনার মন্তব্য লিখুন