বীরগঞ্জ ডিগ্রী কলেজে অযোগ্য শিক্ষক নিয়োগে কোটি কোটি টাকার ভাগ বাটোয়ারা শিক্ষার মান অর্ধশত বছর পিছিয়ে পড়েছে

Share This
Tags

newsbdn
সিদ্দিক হোসেন দিনাজপুর  প্রতিনিধি: অভিযোগ সূত্রে প্রকাশ, বীরগঞ্জ ডিগ্রী কলেজে চারদলীয় জোট সরকার ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ে তৎকালীন জাতীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক আব্দুল্লা আল কাফি নিয়ম বর্হিভূতভাবে মোঃ খায়রুল ইসলামকে অধ্যক্ষ নিয়োগ প্রদান করলে অধ্যক্ষ মোঃ খায়রুল ইসলাম নিজ ক্ষমতা বলে কোটি কোটি টাকার বিনিময়ে অযোগ্য শিক্ষক নিয়োগ দিয়ে বীরগঞ্জের শিক্ষার মানকে পিছিয়ে দিয়েছেন। যে বিষয়ের উপর শিক্ষক নিয়োগ প্রদান করা হয়েছে, ঐসব শিক্ষক সেই বিষয়ের উপর কোন অভিজ্ঞতাই নেই। বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষার মান উন্নয়নের লক্ষ্যে ব্যাপক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। অপরদিকে বীরগঞ্জ ডিগ্রী কলেজের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও অধ্যক্ষ মোঃ খায়রুল ইসলাম মেধা তালিকায় শিক্ষক নিয়োগ না নিয়ে প্রতিজন শিক্ষক নিয়োগে ২৫/৩০ লক্ষ টাকার বিনিময়ে শিক্ষক নিয়োগ দিয়ে শিক্ষার মানকে ধূলিসাৎ করেছেন। ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসে বীরগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ শহীদ মিনারে পুষ্পমালা অর্পণ ও কোন অনুষ্ঠান করেনি। কারণ হিসেবে জানা গেছে, স্বাধীনতা যুদ্ধকালীন সময়ে অধ্যক্ষ মোঃ খায়রুল ইসলামের পিতা মরহুম কারিমুল ইসলাম পিস কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন। বীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের কিছু নেতাদের ম্যানেজ করে উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি হয়েছেন। এব্যাপারে বীরগঞ্জ ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ খায়রুল ইসলামের সঙ্গে কথা বললে, তিনি কোন প্রশ্নের উত্তর দিতে রাজি না। এব্যাপারে বীরগঞ্জ বাসী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখহাসিনার আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন