Published On: মঙ্গল, ডিসে ২০, ২০১৬

ইমতিয়াজুল ইসলাম আরিফের কবিতা – গরিবের ভুঁড়ি ভোজ

Share This
Tags

20161216_175755_hdr

গরিবের ভুঁড়ি ভোজ

                            -ইমতিয়াজুল ইসলাম আরিফ 

কে নিলো, গিলে খেলো,

যেই এলো, নিয়ে গেলো,

তাতে নাই কোন খোঁজ,

সবাই শুধু খেতে চায়,

গরিবের ভুঁড়ি ভোজ।

অনেকে দেয় মূর্খ ভাষণ,

কাঙ্গাল সভায় কড়া শাসন,

কত জায়গায় মরে রাজন,

মন্ত্রী করে সাধের ভোজন।

মিলন সভায় বাজে খঞ্জন,

সাঁওতালদের রক্ত রঞ্জন,

ধর্মে ধর্মে মন নির্জন,

কখনও মুণ্ডু দেয় বিসর্জন।

যে বলে সত্য কথা,

তাকেই ধরে মারছে সদা,

মিথ্যা করে দফা রফা,

শুধু ভালো নয় সত্য সভা,

তুমি জান তুমি ভুল,

তবু নড়বে না এক চুল?

কথায় কথায় মানবতা,

ভেতর ভরা কেন দানবতা?

ধর্ম ধর্মের গলা চাপে,

অন্য ধর্ম ভয়ে কাপে,

ক্ষুধার ধর্ম হঠাৎ কাঁদে,

ধর্ম ফেলায় কঠিন ফাঁদে,

টাকা থাকলে শিক্ষা আছে,

শিক্ষক ঘোরে টাকার পাছে,

দেশ মাতা আজ ধর্ষিত হয়,

কেউ কি ঘাতকের বিরুদ্ধে কয়?

অন্যায় শুধু মানুষ মারে,

কেউ যায়না অসহায়ের দ্বারে,

মন্ত্রী যখন মৃত্যু পাড়ে,

হঠাৎ দেশের কান্না ঝরে,

ঋণ খেলাপি দেশটা চালায়,

মুখ বাধা আজ ঘুষের তালায়,

লাভের টাকা হঠাৎ বাড়ায়,

কৃষক মরে ঋণের জ্বালায়,

ঋণ খেলাপি হঠাৎ পালায়,

মন্ত্রী ভাঙ্গে সান্ত্বনা কান্নায়,

জনতা করে বড় অন্যায়,

হাসি মাখা থাকে ভোট বন্যায়,

প্রতিবাদ করা মানুষ কজন,

ক্ষমতা মারে ডজন ডজন,

চলো এবার উঠি,

ঝাণ্ডা হাতে ছুটি,

সকল বাধা টুটি,

অশুভ শক্তি কুটি,

মুক্ত হবে সকল বাধা,

কেউ দেখবে না চোখে ধাঁ ধাঁ,

সব কিছু শেষে হাসেবে দেশ,

গরিব এই ভালো এই বেশ।

আপনার মন্তব্য লিখুন