Published On: মঙ্গল, ডিসে ২০, ২০১৬

যুথিকা দাসের “বিবাদী সপ্তমে”

Share This
Tags

  • “বিবাদী সপ্তমে”
                                -যুথিকা দাস

অব্যক্ত চারুকলা শিল্প হয় না
বরং প্রতিক্ষণের সাক্ষ্য হয়ে থাকে
অনাদিকালের অনন্ত শব্দের জটরে।
প্রত্যেক শব্দের প্রতিশব্দ গুলো অন্তহীন,
যেমনটি ছিলো তেমনটি থাক না
নাইবা হোক বলা, কোনোদিন।

তবুও কনকনে হাওয়া
বিবাদী রাগে তোমার কথাই বলে।
জীবন যদি ছন্দহীন গতি
আমি বিবাদী সপ্তমে বাঁধি ঘর
পোষাকী শব্দ গুলো আঁড়ি পাতে
কোনো ঠিকানাবিহীন খামের উপর
শব্দের মোহে আবদ্ধ রাতে।

প্রশাম্ত সাগর নির্জনে কাঁদে
তবুও বুকের ভেতর শুকনো বালুচর
প্রতীক্ষার জীর্ন দ্বার
প্রশান্ত তুমি বাঁধলে ঘর
কথা গুলো থাকে অব্যক্ত,
রক্তক্ষরণ হয়ে শব্দগুলো অচল!

এ নির্মিত শব্দের অভিধান
তোমারও আছে, হয়তো আমারো
পৃথিবী যতোটা তোমার ঠিক ততো আমারও,
অনেক বিজ্ঞাপনের দেয়াল লিখেছো
কাজ হবে না, নর্দমায় পড়ে থাক,
শব্দ গুলো উদ্ধার করে প্রতিশব্দ থেকে
তবুও প্রতারিত শব্দের কারু কাজ
শিল্পায়িত করবে এ মাটির বুকে,এ বুকে।

আমার শেষ শর্ত মুছে ফেলো
আবারো বলছি মুছে নাও প্রশাম্ত,
দেখি তোমার কত আছে প্রহসন
কলঙ্কের স্তুপে শব্দের তির্যক আলাপন,
নীতিকথা, আজ কাল ছেঁড়া রোদন
নাড়ীছেঁড়া শব্দ হাসবে প্রতিবার, প্রতিক্ষণ!

আপনার মন্তব্য লিখুন