খানসামা ডিগ্রী কলেজকে জাতীয়করণ ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

Share This
Tags

Pic -15-01-17
সিদ্দিক হোসেন দিনাজপুর প্রতিনিধি :খানসামা ডিগ্রী কলেজকে জাতীয়করণ ও আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং গ্রেফতার করা নেতৃবৃন্দের মুক্তির দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছে খানসামা উপজেলা সদর উন্নয়ন বাস্তবায়ন কমিটি। একই সাথে তারা আগামী ২৬ জানুয়ারী মানববন্ধন এবং প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসুচী ঘোষনা করেছে।
রবিবার সকাল ১১টায় দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে খানসামা উপজেলা সদর উন্নয়ন বাস্তবায়ন কমিটির আয়োজনে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন উন্নয়ন বাস্তবায়ন কমিটির সদস্য শফিক আহম্মেদ পরাগ। তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন,খানসামাবাসীর প্রানের দাবী খানসামা ডিগ্রী কলেজকে জাতীয়করণ কে উপেক্ষা করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এমএইচ মাহমুদ আলী নিজের ভাগিনাকে গত কয়েক দিন আগে তিনি যে কলেজে চাকুরী দিয়েছেন সেই কলেজ কে জাতীয়করনের ঘোষনা দিয়েছেন যা খানসামাবাসী মেনে নিতে পারছেনা। তার এই ঘোষনার প্রতিবাদে খানসামাবাসী আন্দোলন- সংগ্রাম করছে,পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আত্বীয়করনের সিদ্ধান্তে ফুঁসছে খানসামার সাধারন মানুষ এবং হতবাক হয়ে পড়েছে তারা।
দাবী আদায়ের নিয়ম মাফিক আন্দোলন করতে গিয়ে এখন খানসামার আবাল-বৃদ্ধ-বনিতা সবাই পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলীর রসানলে পড়েছেন ও মামলার আসামী হয়েছেন ইতিমধ্যে অনেকে গ্রেফতার হয়ে জেল হাজত খাটছেন। গ্রেফতার আতংকে পালিয়ে বেড়াচ্ছে ৪ গ্রামের অগনিত পুরুষ। ভুগছেন পুলিশী হয়রানী মিথ্যা মামলা এবং স্বীকার হচ্ছেন অন্যায় দোষারোপের নানান কৌশলের। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত অনেকেই বলেছেন,সারাজীবন আওয়ামীরীগের রাজনীতি কওে এখন পুলিশের নির্যাতনে স্বীকার হতে হচ্ছে,শিশু বাচ্চা থেকে শুরু কওে বয়স্ক নারীরাও রেহাই পাচ্ছেনা পররাষ্ট্রমন্ত্রীর লেলিয়ে দেয়ে পুলিশের নির্যাতন থেকে। তাই তারা পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এহেন কর্মকান্ডের প্রতিবাদে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচার প্রার্থনা করে দ্রুততার সাথে তার হস্তক্ষেপ প্রত্যাশা করছেন।
তারা বলেন,খানসামা-চিরিরবন্দরের মানুষ জানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলী এবং তার ছোট ভাই শামীম এলাকার উন্নয়নে কোন অবদান না রাখলেও নিজেদের ভাগ্যোর উন্নয়ন করছেন ঠিকই। খানসামার মানুষ এবং দলীয় নেতাকর্মীরা আজ পদে পদে লাঞ্চিত হচ্ছেন্। মন্ত্রী এবং তার ছোট ভাই শামীমের বিরুদ্ধে কেউ কোন ধরনের মন্তব্য করতেই সাহস পান না। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়েছে, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং তার ছোট শামীমের অপকর্মের কারনেই খানসামাবাসী ফুঁসে উঠেছে এবং তাদের দমনে মন্ত্রী সরকারী শক্তির অপপ্রয়োগ ঘটাচ্ছে দলীয় নেতাকর্মীদের উপর,দলের ভাবমুর্তিও ক্ষন্নু হচ্ছে।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন খানসামা উপজেলা সদর উন্নয়ন বাস্তবায়ন কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম,সোহানুর রহমান মোঃ রুমেনুর রহমান,মাহমুদুল হাসান,সৈকত শাহ ও জয়নাল আহম্মেদ প্রমুখ।

আপনার মন্তব্য লিখুন