নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটিকে স্বাগত জানাল চিলাহাটিবাসি

Share This
Tags

001
আনিছুর রহমান মানিক, ডোমার, (নীলফামারী) প্রতিনিধিঃ লাল-সবুজ সম্বলিত নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটি আমাদের বহুল প্রত্যাশিত। কাংখিত এই ট্রেনটি আজ পেয়ে সত্যিই আমরা আনন্দিত। ডোমার উপজেলার চিলাহাটি রেল স্টেশনে লাল-সবুজ বেষ্টিত নতুন আঙ্গিকে সাজানো নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটিকে স্বাগত জানানোর জন্য চিলাহাটি আওয়ামীলীগ ও এর অংগ সংগঠন কর্তৃক আয়োজিত অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন, অনুষ্ঠানটির প্রধান অতিথি ডোমার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক বসুনিয়া। ২৪জানুয়ারী নীলসাগর এক্সপ্রেস-এ নতুন র‌্যাক সংযুক্ত হওয়ায় ট্রেনটিকে স্বাগত জানানো অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকেন, চিলাহাটি ভোগডাবুরী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান একরামুল হক, সাবেক চেয়ারম্যান মুরাদ আলী প্রামাণিক, ভোগডাবুরী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি আজাদুল হক প্রামাণিক,সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক হাফিজুর রহমান বকুল, আওয়ামী যুবলীগ সভাপতি একেএম জাহাঙ্গির কবির রাসেল, চিলাহাটি রেল স্টেশন মাস্টার আব্দুল মতিন, সহকারী স্টেশন মাস্টার আব্দুল মালেক প্রমূখ। বিশেষ অতিথি ও অনুষ্ঠানের সভাপতি প্রভাষক হাফিজুর রহমান বকুল বলেন, রেল ভ্রমণে টিকেট মূল্য যেন সহনীয় মাত্রায় থাকে। এজন্য রেল কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানাচ্ছি। কারণ, টিকেট মূল্য সহনীয়মাত্রায় না থাকলে যাত্রীরা সভাবতই দূর্নীতি করে টিকেট না কেটে অল্প টাকায় অসাধু কিছু রেলকর্মকর্তা-কর্মচারীদের দিয়ে যাতায়াত করবে। এটা যেন না ঘটে। এসময় চিলাহাটিতে লাল-সবুজ র‌্যাক সংযুক্ত নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটি চিলাহাটি হতে চালু করার জন্য মাননীয় রেল মন্ত্রী মুজিবুল হক, সাংস্কৃতিক বিষয়ক মন্ত্রী আশাদুজ্জামান নুর ও ডোমার-ডিমলা সাংসদ বীরমুক্তিযোদ্ধা আফতাব উদ্দিন সরকারকে প্রাণঢালা অভিনন্দন জানান। এদিকে অনুষ্ঠানের শুরুতে চিলাহাটিবাসির পক্ষ থেকে ডোমার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক বসুনিয়া লাল ফিটা কেটে নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটিকে স্বগত জানান। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ভোগডাবুরী ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক লূৎফর রহমান লিটু। উল্লেখ্য, নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট-এ মাননীয় রেল মন্ত্রী মুজিবুল হক, সাংস্কৃতিক বিষয়ক মন্ত্রী আশাদুজ্জামান নুর ও ডোমার-ডিমলা সাংসদ বীরমুক্তিযোদ্ধা আফতাব উদ্দিন সরকারসহ রেলওয়ের কর্মকর্তাগণ ২৪জানুয়ারী সকাল ৮.১৫টায় শুভ উদ্ভোধন করেন এবং চিলাহাটিতে চিলাহাটিবাসি সন্ধা ৭.৪৪টায় স্বাগত জানান। এসময় ট্রেনটি লাল-সবুজের ১২টি নতুন র‌্যাক সংযুক্ত ছিল।

আপনার মন্তব্য লিখুন