Published On: বুধ, জানু ২৫, ২০১৭

রোববার নতুন মুদ্রানীতি ঘোষণা

Share This
Tags

bank

ঢাকা: আগামী ২৯ জানুয়ারি চলতি অর্থবছরের দ্বিতীয়ার্ধের মুদ্রানীতি ঘোষণা করবে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির ওই দিন মুদ্রানীতি ঘোষণা করবেন। এতে অন্যতম লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে রাখা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব কমিউনিকেশন্স অ্যান্ড পাবলিকেশন্স এর মহাব্যবস্থাপক জি এম আবুল কালাম আজাদ জানিয়েছেন, গভর্নর আগামী ২৯ জানুয়ারি রোববার বেলা ১১টায় ব্যাংকের জাহাঙ্গীর আলম কনফারেন্স হলে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুদ্রানীতি ‘মানিটারি পলিসি স্টেটমেন্ট’ প্রকাশ করবেন।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্র জানিয়েছে, ইতিমধ্যে ব্যবসায়ী, অর্থনীতিবিদসহ সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে বৈঠক করেছেন কেন্দ্রীয় ব্যাংক কর্মকর্তারা।

মুদ্রানীতির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা বলছেন, বর্তমানে বেসরকারি খাতে বিনিয়োগ কম। ফলে তফসিলি ব্যাংকগুলোতে প্রচুর পরিমাণ তারল্য রয়েছে। এ দিকটি বিবেচনায় রেখে অর্থবছরের দ্বিতীয়ার্ধের জন্য নতুন মুদ্রানীতি ঘোষণা করা হবে। তবে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে রাখাই হবে নতুন মুদ্রানীতির অন্যতম লক্ষ্য। এ ক্ষেত্রে সরকারের জিডিপি লক্ষ্যমাত্রা যাতে অর্জন করা যায়, সেটি নিশ্চিত করতে বেসরকারি খাতের ঋণ প্রবৃদ্ধি বাড়ানোর দিকে বিশেষ মনোযোগ দেওয়া হবে।

এ ছাড়া নতুন মুদ্রানীতিতে কৃষি, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে সহজ ও স্বল্প সুদে ঋণ পাওয়ার বিষয়টিও নজরদারিতে রাখা হবে।

মুদ্রানীতিতে জুলাই-ডিসেম্বর সময়ের জন্য বেসরকারি খাতের ঋণের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১৬ দশমিক ৬ শতাংশ। যার মধ্যে ১৫ দশমিক ৯ শতাংশ অর্জিত হয়েছে। আসন্ন নতুন মুদ্রানীতিতে বেসসরকারি খাতের ঋণ প্রবাহের লক্ষ্যমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত রাখা হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের মুদ্রানীতিবিষয়ক (মনিটরি ডিপার্টমেন্ট) বিভাগের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা বলেন, ‘ঋণপ্রবাহ অনুৎপাদনশীল খাতে ঝুঁকিপূর্ণ কাজে ব্যবহার না হয়ে যাতে অভ্যন্তরীণ ও রপ্তানি চাহিদার জন্য উৎপাদনের প্রকৃত প্রয়োজনে ব্যবহার হয়, সেদিকে লক্ষ রাখার জন্য বাংলাদেশ ব্যাংক নজরদারি বাড়াবে। খাদ্যনিরাপত্তার স্বার্থে কৃষিঋণ বিতরণ নিশ্চিতের বিষয়েও নজরদারি বাড়ানো হবে।’

আপনার মন্তব্য লিখুন