৩০ এপ্রিল শুল্ক গোয়েন্দায় যেতে হবে প্রিন্স মুসাকে

Share This
Tags

নিজস্ব প্রতিবেদক :

http://newsbdn.com

স্বঘোষিত ধনকুবের মুসা বিন শমসেরকে (প্রিন্স মুসা) আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত সময় দিয়েছে শুল্ক গোয়েন্দা।
বিলাসবহুল গাড়িতে শুল্ক ফাঁকি ও মানি লন্ডারিংয়ের অভিযোগে তাকে ২০ এপ্রিল হাজির হতে নোটিশ দেয় সংস্থাটি। কিন্তু আংশিক পক্ষাঘাতগ্রস্ত ও বাকরুদ্ধের মতো নানা জটিল রোগে আক্রান্ত হওয়ার কারণ দেখিয়ে সময় প্রার্থনা করেন প্রিন্স মুসা। এরপরই যাচাই-বাছাই শেষে সময় বৃদ্ধি করে তাকে ৩০ এপ্রিল (রোববার) বিকেল ৩টায় শুল্ক গোয়েন্দায় হাজির হতে আবার চিঠি দেওয়া হয়।

সংস্থাটির সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ জাকারিয়ার সই করা চিঠির সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।শনিবার শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মইনুল খান এ তথ্য জানিয়েছেন।গত ১৯ এপ্রিলে প্রিন্স মুসা শারীরিক অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে স্বশরীরে শুল্ক গোয়েন্দা অধিদপ্তরে উপস্থিত হতে সময় প্রার্থনা করে আবেদন জানান।

মুসা বিন শমসের তার চিঠিতে বলেন, ‘বর্তমানে আমি মারাত্মকভাবে অসুস্থ। আমার মুখের ডানপাশটি আংশিক প্যারালাইজড বা পক্ষাঘাতে জর্জরিত। আমার বাকশক্তি মারাত্মকভাবে লোপ পেয়েছে। যার কারণে আমি সঠিকভাবে কথা বলতে পারছি না। এ কারণে আমি শারীরিক ও মানসিকভাবে ভীষণ অসুস্থ ও পর্যুদস্ত। তাই উক্ত রোগ নিরাময়ের জন্য ডাক্তার আমার দীর্ঘমেয়াদি চিকিৎসার জন্য পরামর্শ ও বিশ্রামে থাকতে উপদেশ দিয়েছেন।’

গত ২১শে মার্চ গুলশান ২ এর রোড নম্বর ১০৪ হাউস ৮ এর বাড়িতে অভিযানের সূত্রে রেঞ্জ রোভার গাড়ি আটক করে শুল্ক গোয়েন্দারা। গাড়িটি ভোলা বিআরটিএ থেকে ভুয়া বিল অব এন্ট্রি দিয়ে জনৈক ফারুকুজ্জামানের নামে রেজিস্ট্রেশন করানো হয়। গাড়ির নম্বর ভোলা ঘ ১১-০০৩৫।

সূত্র জানায়, গাড়ির চেসিস অনুসারে এটি কার্নেট ডি প্যাসেজের মাধ্যমে আনা হলেও শর্ত মোতাবেক পুনঃরপ্তানি হয়নি। প্রিন্স মুসা গাড়িটি শুল্কমুক্ত সুবিধার অপব্যবহার করে এবং জালিয়াতি করে অন্যের নামে রেজিস্ট্রেশন করেন। তিনি নিজেই গাড়িটি ব্যবহারকারী। এতে সরকারের ২ কোটি ৪৮ লাখ টাকা শুল্ককর ফাঁকি হয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন