১১ দিনের এশিয়া সফরে ট্রাম্প

Share This
Tags

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

 http://newsbdn.com

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ১১ দিনের এশিয়া সফরে আসছেন। গত ২৫ বছরে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টদের মধ্যে দীর্ঘতম এশিয়া সফর এটি।১১ দিনের এশিয়া সফরের শুরুতে প্রথমে জাপান পৌঁছাবেন ট্রাম্প। জাপানসহ এশিয়ার পাঁচ দেশ দক্ষিণ কোরিয়া, চীন, ভিয়েতনাম ও ফিলিপাইন সফর করবেন তিনি।

একের পর এক উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা ও দেশটির পরমাণু কার্যক্রম নিয়ে বিদ্যমান উত্তেজনা যখন চরমে, তখন এ সফর করছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তার সফরে গুরুত্বের শীর্ষে থাকবে উত্তর কোরিয়াকে তাদের পরমাণু কার্যক্রম থেকে বিরত রাখার আলোচনা।

পরমাণু কার্যক্রম থেকে উত্তর কোরিয়াকে দূরে রাখতে ট্রাম্পের এ সফরে দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানের সঙ্গে যৌথভাবে চীনের ওপর চাপ প্রয়োগ করা হবে। পিয়ংইয়ংয়ের বিরুদ্ধে বেইজিংকে আরো কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার তাগিদ দেবে তারা।

এশিয়া সফরে আসার পথে স্থানীয় সময় শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াই রাজ্যে পৌঁছান ট্রাম্প। সেখানে যুক্তরাষ্ট্রের প্যাসিফিক কমান্ডে এক ব্রিফিংয়ে অংশ নেন তিনি। পার্ল হারবারে ‘ইউএসএস আরিজোনা মেমোরিয়্যাল’ পরিদর্শন করবেন ট্রাম্প। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ১৯৪১ সালে এই পার্ল হারবারে হামলা চালায় জাপানি বাহিনী এবং যার ফলে সরাসরি যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ে যুক্তরাষ্ট্র।

হাওয়াই থেকে জাপানের উদ্দেশে রওনা দেবেন ট্রাম্প ও ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। একনজরে দেখে নেওয়া যাক ট্রাম্পের এশিয়া সফরসূচি :

৫ নভেম্বর : সস্ত্রীক জাপান পৌঁছাবেন ট্রাম্প। দেশটির কাসুমিগাসেকি কাউন্টি ক্লাবের মাঠে জাপানি প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে ও পেশাদার খেলোয়াড় হিদেকি মাতসুয়ামার সঙ্গে গলফ খেলবেন তিনি। এ ছাড়া শিনজো আবের সঙ্গে দিপাক্ষিক বৈঠক করবেন।

৭ নভেম্বর : দক্ষিণ কোরিয়া যাবেন এবং দেশটির প্রেসিডেন্ট মুন জে-ইনের সঙ্গে বৈঠক করবেন। দক্ষিণ কোরিয়ার পার্লামেন্টে ভাষণ দেবেন তিনি।

উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কার্যক্রম নিয়ে সম্প্রতি যুদ্ধংদেহী ভাষায় কথা বলে যাচ্ছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। উত্তর কোরিয়াকে ‘সম্পূর্ণ ধ্বংস’ করে দেওয়ার হুমকি দিয়েছেন তিনি। তবে গত সপ্তাহে ট্রাম্প প্রশাসন জানায়, কড়া নিরাপত্তাবেষ্টনী দিয়ে ঘেরা উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যবর্তী অসামরিক সীমান্ত অঞ্চলে যাবেন না প্রেসিডেন্ট। আশঙ্কা রয়েছে, ট্রাম্প এ অঞ্চল পরিদর্শন করলে আরো ক্ষেপে যাবে পিয়ংইয়ং।

দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউলের দক্ষিণে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক কমপ্লেক্স ‘ক্যাম্প হামফ্রেস’ পরিদর্শন করবেন ট্রাম্প।

৮ নভেম্বর : দক্ষিণ কোরিয়ার পর চীনে যাবেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। সেখানে বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন, যার মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে দিপাক্ষিক বৈঠক।

১০ নভেম্বর : চীনের দুই দিনের সফর শেষে ভিয়েতনামে যাবেন ট্রাম্প। দেশটির দানাংয়ে অনুষ্ঠেয় এশিয়া-প্যাসিফিক ইকোনমিক কো-অপারেশনের (অ্যাপেক) শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেবেন এবং পরের দিন রাজধানী হ্যানয়ে ভিয়েতনামি প্রেসিডেন্ট ত্রান দাই কুয়াংয়ের সঙ্গে বৈঠক করবেন।

১২ নভেম্বর : এদিন ফিলিপাইনের রাজধানী ম্যানিলায় দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় জাতিসমূহের জোট আসিয়ানের সুবর্ণজয়ন্তি উপলক্ষে আয়োজিত বিশাল ভোজসভায় অংশ নেবেন ট্রাম্প। পরদিন আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেবেন এবং ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতের্তের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হবেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন